আফ্রিকার কিছু অংশেও ছড়িয়ে পড়ছে মাঙ্কিপক্স

জিবিনিউজ 24 ডেস্ক//

আফ্রিকার কিছু অংশেও মাঙ্কিপক্স ছড়িয়ে পড়ছে। এখন এটা আরো দ্রুত ছড়াচ্ছে। এ নিয়ে বিভিন্ন দেশে উদ্বেগ বেড়েছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা অবশ্য বলছে, এই ভাইরাস মানুষ থেকে মানুষে সংক্রমণ ঘটলেও তা সীমিত সংখ্যায় হয়ে থাকে।

শুক্রবার (২০ মে) ফ্রান্সে মাঙ্কিপক্সে সংক্রমিত প্রথম রোগী পাওয়া গেছে। এর আগে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, কানাডা, ইতালি ও পর্তুগালে এই রোগ শনাক্ত হয়েছে।

 

জানা গেছে, মাঙ্কিপক্স হলো একটি ভাইরাস, যা পশু থেকে মানুষের মধ্যে সংক্রমিত হয়। এর লক্ষণগুলো গুটিবসন্তের মতোই। জ্বর, গায়ে ব্যথা, আকারে বড় বসন্তের মতো গায়ে গুটি ওঠাকে আপাতত মাঙ্কিপক্সের উপসর্গ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। এ রোগে প্রাণহানির সংখ্যা খুবই কম।

আফ্রিকায় দড়ি কাঠবিড়ালি, গাছ কাঠবিড়ালি, গাম্বিয়ান ইঁদুর, ডর্মিসের পাশাপাশি বিভিন্ন প্রজাতির বানর এবং অন্যান্য প্রাণীর মধ্যে মাঙ্কিপক্স পাওয়া গেছে।

মানবদেহে মাঙ্কিপক্স প্রথম শনাক্ত করা হয় ১৯৭০ সালে জায়ারে। দেশটি এখন ডেমোক্রেটিক রিপাবলিক অব কঙ্গো নামে পরিচিত। সেখানে ৯ বছর বয়সী এক শিশুর এই রোগ শনাক্ত হয়। এর দুই বছর আগেই দেশটি থেকে গুটিবসন্ত বিদায় নিয়েছিল।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্য অনুযায়ী, ১৯৭০ সালের পর থেকে আফ্রিকার ১১টি দেশে মাঙ্কিপক্স ছড়িয়ে পড়ে। দেশগুলো হচ্ছে বেনিন, ক্যামেরুন, সেন্ট্রাল আফ্রিকান রিপাবলিক, ডেমোক্রেটিক রিপাবলিক অব কঙ্গো, গ্যাবন, আইভরি কোস্ট, লাইবেরিয়া, নাইজেরিয়া, রিপাবলিক অব কঙ্গো, সিয়েরা লিওন ও সাউথ সুদান। ২০০৩ সালে আফ্রিকার বাইরে যুক্তরাষ্ট্রে প্রথম এই রোগ শনাক্ত হয়।

মন্তব্যসমূহ (০)


ব্রেকিং নিউজ

লগইন করুন


Remember me Lost your password?

Don't have account. Register

Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন