ভিক্টোরিয়ার কাছে বিনা মূল্যে হাতব্যাগ ও পোশাক চেয়েছিলেন মেগান

ভিক্টোরিয়া বেকহামের কাছ থেকে বিনা মূল্যে হাতব্যাগ চেয়েছিলেন মেগান মার্কেল। তারকা জীবনীকার টম বোওয়ারের নতুন বই ‘দ্য হাউস অফ বেকাহাম: মানি, সেক্স অ্যান্ড পাওয়ার’-এ এই তথ্য উঠে এসেছে। বইটিতে বেকহাম এবং সাসেক্সের সম্পর্কের ওপর আলোকপাত করা হয়েছে। 

টম তার নতুন বইতে দাবি করেছেন, প্রিন্স হ্যারির সঙ্গে বাগদানের সময় মেগান স্পাইস গার্লস তারকা ভিক্টোরিয়া বেকহামের কাছে বিনামূল্যে জামাকাপড় এবং হ্যান্ডব্যাগ চেয়েছিলেন।

তবে এ ধরনের অনুরোধ নীতিবিরুদ্ধ বলে ভেটো দিয়েছিল বাকিমহাম প্যালেস।

 

শুধু তাই নয় বিস্ফোরক বইটিতে আরো দাবি করা হয়েছে, ভিক্টোরিয়া তার চেয়ে বেশি ধনী হওয়ার বিষয়টি মেগান ভালোভাবে নেননি। বইতে বলা হয়েছে, মেগান যখন জানতে পেরেছিলেন বেকহামদের যথেষ্ট বেশি সম্পদ রয়েছে তখন তিনি বিরক্ত হয়েছিলেন।

২০১৮ সালে বিখ্যাত এই দুই পরিবারের সম্পর্কের মধ্যে ফাটল দেখা দিতে শুরু করে।

টম বোওয়ারের মতে, বেকহাম হ্যারি এবং মেগানের বিয়েতে হাজির হয়েছিলেন কিন্তু তাদের বিবাহের নৈশভোজে আমন্ত্রণ পাননি। 

 

তিনি আরো বলেন, সম্পর্কের ফাটল আরো স্পষ্ট হয়ে ওঠে গত বছর। যখন সাসেক্সরা ব্রুকলিন বেকহ্যামের বিয়ের অতিথির তালিকায় ছিলেন না। তবে প্রিন্স উইলিয়াম ও কেট মিডলটন বেকহ্যাম দম্পতির বড় ছেলে ব্রুকলিনের বিয়েতে আমন্ত্রিত ছিলেন।

বইটি গত ২০ জুন প্রকাশিত হয়।

 

টম বোয়ার বলেছিলেন, মেগান নিজেকে বেকহামদের ওপরে স্থান দিয়েছিলেন। কিন্তু পরে তিনি আবিষ্কার করেন, রাজপরিবারে তার স্থান হওয়া সত্ত্বেও ভিক্টোরিয়া প্রকৃতপক্ষে সম্পদের দিক থেকে তার থেকেও ওপরে। খ্যাতিতেও এগিয়ে। 

টম তিনি দাবি করেন, ‘মেগানের সেলিব্রিটি বিশ্বের র‌্যাঙ্কিংটা সম্পদ এবং খ্যাতির ওপর নির্ভর করে।

এ ক্ষেত্রে একজন অভিজ্ঞ ব্যক্তি হিসেবে মেগান নিজেকে বিভ্রান্ত করে ফেলেছিলেন। তিনি ভেবেছিলেন, রাজপরিবারে তার মর্যাদা সামাজিক ক্রমানুসারে তাকে ভিক্টোরিয়ার ওপরে রেখেছে।’

 

টম আরো বলেন, ‘মেগান এটা জানার পর বেশ বিরক্ত হয়েছিলেন। বেকহামের যথেষ্ট পরিমাণে সম্পদ আছে। তারা পাঁচটি বাড়ির মালিক, ব্যক্তিগত জেট বিমান, ইয়ট এবং আরো অনেক কিছু আছে। এবং তিনি (মেগান) শীঘ্রই একজন ডাচেস হতে যাচ্ছেন।’

বই অনুসারে, ভিক্টোরিয়া দয়া করে মেগানকে লন্ডনের সেরা সৌন্দর্যবিষয়ক পরামর্শ নিতে ব্যবস্থা করে দিয়েছিলেন। তবে এই দুই নারীর মধ্যে সম্পর্ক খারাপ হয়, যখন দ্য সান প্রতিবেদন করে যে, ভিক্টোরিয়া মেগানকে মেকআপ বিষয়ক পরামর্শ দিয়েছিল।

মেগান ভিক্টোরিয়ার বিরুদ্ধে গোপন তথ্য ফাঁস করার অভিযোগ এনেছিল। এরপর থেকে ভিক্টোরিয়া বেকহ্যাম ও মেগানের মধ্যে দুরত্ব বাড়ে। দুজনের দীর্ঘদিনের বন্ধুত্ব নষ্ট হয়ে যায়।

মন্তব্যসমূহ (০)


ব্রেকিং নিউজ

লগইন করুন


Remember me Lost your password?

Don't have account. Register

Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন